English Version

আচরণবিধি

স্কুল শৃঙ্খলার কতিপয় গুরুত্বপূর্ণ জ্ঞাতব্য বিষয়ঃ

 

১. প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে অবশ্যই সুশৃংখল, সংযত, ভদ্র ও নিয়মানুবর্তী হতে হবে।

২. প্রত্যেক ছাত্রীর প্রতিটি কর্ম দিবসে স্কুলে উপস্থিতি বাধ্যতামূলক। কোন ছাত্রী বছরের মোট কর্ম দিবসের ৯০% স্কুলে উপস্থিত না থাকলে সে স্কুলের ছাত্রী বলে গণ্য হবে না। তবে অভিভাবক কর্তৃক লিখিতভাবে আবেদন করলে বিষয়টি বিবেচিত হতে পারে।

৩. স্কুল ছুটির পূর্বে কোন ছাত্রী বিনা অনুমতিতে স্কুলের বাইরে যেতে পারবে না। বিশেষ প্রয়োজনে প্রকৃত অভিভাবকের স্বাক্ষরযুক্ত (পূর্ণ ঠিকানাসহ) শ্রেণী শিক্ষকের সুপারিশসহ আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আংশিক ছুটি বিবেচনা করা যেতে পারে। তবে কোন অবস্থাতেই কোন ছাত্রী একা যেতে পারবে না।

৪. কোন ছাত্রী বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থাকলে প্রতিদিন স্বয়ংক্রিয়ভাবে ক্ষুদ্র বার্তার মাধ্যমে (এস.এম.এস) অভিভাবককে অবহিত করা হয়। অনুপস্থিতির যথাযথ কারণ উল্লেখ করে শ্রেণী শিক্ষকের মাধ্যমে অধ্যক্ষ বরাবর অভিভাবকের স্বাক্ষরসহ আবেদন করতে হবে অন্যথায় প্রতিদিনের অনুপস্থিতির জন্য নার্সারি থেকে সপ্তম শ্রেণী পর্যন্ত ২০ (বিশ) টাকা এবং অষ্টম শ্রেণী থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত ৫০ (পঞ্চাশ) টাকা জরিমানা দিতে হবে।

৫. শ্রেণীতে পাঠ-দান চলাকালে কোন ছাত্রী বারান্দায় বা শ্রেণীকক্ষের বাইরে ঘোরাফেরা করতে পারবে না।

৬. প্রকৃত অভিভাবক ব্যতীত বা তাদের মনোনীত ব্যক্তি ব্যতীত অন্য কেউ কোন ছাত্রীর সাথে বিদ্যালয়ে সাক্ষাৎ করতে পারবে না।

৭. প্রত্যহ ক্লাস শুরুর পূর্বে সমাবেশ ও জাতীয় সংগীত পরিবেশনে অংশগ্রহণ   এবং জাতীয় পতাকার প্রতি সম্মান প্রদর্শন বাধ্যতামূলক/সমাবেশ শেষে লাইন করে ছাত্রীদের শ্রেণীকক্ষে প্রবেশ করতে হবে। কোনরূপ ছুটাছুটি দৌড়াদৌড়ি করে বিশৃঙ্খল অবস্থায় শ্রেণীকক্ষে প্রবেশ নিষিদ্ধ।

৮. প্রভাতী শাখার জন্য গ্রীষ্মকালীন সময়ে সমাবেশ সকাল ৭:১০ মিনিটে এবং ছুটি ১২টায়। দিবা শাখার জন্য সমাবেশ ১২:১০ মিনিটে এবং ছুটি বিকাল ৫টায়। শীতকালীন সময়ে সমাবেশ সকাল ৭:৪০ মিনিটে এবং ছুটি ১২টায় এবং দিবা শাখার সমাবেশ ১২:১০ মিনিটে এবং ছুটি বিকাল ০৪:৩০ মিনিটে।

৯. সমাবেশের ঘন্টা দেয়ার সাথে সাথে অভিভাবকগণ বিদ্যালয় অঙ্গণ ত্যাগ করে চলে যাবেন। শুধু মহিলা অভিভাবকগণ প্রতিষ্ঠানের নির্ধারিত অভিভাবক ছাউনিতে অবস্থান করতে পারবেন।

১০. প্রতিষ্ঠানের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখার জন্য শ্রেণীকক্ষের নির্ধারিত ঝুড়ি ও মাঠের পাশে রক্ষিত ডাস্টবিনে ছেঁড়া কাগজ, খাবারের পরিত্যক্ত কভার ও আবর্জনা রাখতে হবে।

১১. ছাত্রীদের অবশ্যই নির্ধারিত স্কুল পোষাক (ইউনিফর্ম) পরিধান করে ও পরিচয়পত্র লাগিয়ে স্কুলে আসতে হবে।

 

স্কুলের পোষাক (ইউনিফর্ম):

 

ছাত্রদের জন্য (নার্সারী থেকে দ্বিতীয় শ্রেণী পর্যন্ত)

সাদা হাফ শার্ট, নেভী ব্লু হাফ প্যান্ট, নেভী ব্লু কেডস ও সাদা মোজা এবং শীতকালের জন্য নেভী ব্লু ফুল হাতা সোয়েটার।

 

ছাত্রীদের জন্য (নার্সারী থেকে ৪র্থ শ্রেণী পর্যন্ত)

সাদা শার্ট, নেভী ব্লু ফ্রক, নেভী ব্লু কেডস ও সাদা মোজা এবং শীতকালের জন্য নেভী ব্লু ফুল হাতা সোয়েটার।

 

ছাত্রীদের জন্য (৫ম থেকে ১০ম শ্রেণী পর্যন্ত)

সাদা ফুল হাতা শার্ট ও সেলোয়ার, নেভী ব্লু কামিজ ও বেল্ট, সাদা ওড়না ও স্কার্ফ, নেভী ব্লু কেডস ও সাদা মোজা এবং শীতকালের জন্য নেভী ব্লু ফুল হাতা সোয়েটার।